চট্টগ্রামে পিইসি ও ইবতেদায়ীতে পাসের হার কমেছে

50

চট্টগ্রাম, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : শিশুদের প্রথম সার্টিফিকেট পরীক্ষা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ও ইবতেদায়ীতে চট্টগ্রামে এবার পাসের হার কমেছে। অন্যদিকে, ইবতেদায়ীতে জিপিএ-ফাইভ বাড়লেও কমেছে পিইসিতে।
আজ ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, পিইসিতে পাসের হার ৯৬ দশমিক ৭৯ শতাংশ। ২০১৮ সালে পাশের হার ছিল ৯৭.৯৮ শতাংশ। এবার জিপিএ ফাইভ পেয়েছে ১৬ হাজার ৫৩২ জন। গতবার জিপিএ ফাইভ পেয়েছিল ১৮ হাজার ১৮৪ জন শিক্ষার্থী। ইবতেদায়ীতে এবার পাসের হার ৯৫ দশমিক ২০ শতাংশ, গতবার ছিল ৯৫.৮৭ শতাংশ। জিপিএ ফাইভ পেয়েছে ১০৯৯ জন, ২০১৮ সালে এ সংখ্যা ছিল ৯৯৯ জন।
আজ মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম ফলাফল ঘোষণা করেন। এবার চট্টগ্রাম জেলায় মোট এক লাখ ঊনত্রিশ হাজার একশত তেতাল্লিশ (১,২৯,১৪৩) জন শিশু শিক্ষার্থী পিইসিতে অংশ নেয়। ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা যায়, পিইসিতে প্রথম হয়েছে বাঁশখালী উপজেলা, দ্বিতীয় রাউজান ও তৃতীয় পটিয়া উপজেলা।
ইবতেদায়ীতে চব্বিশ হাজার নয়শত বাইশ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে পাস করেছে তেইশ হাজার সাতশত ছাব্বিশ জন। ফলাফলে দেখা যায়, পিইসির মতোই এ ক্ষেত্রেও প্রথম হয়েছে বাঁশখালী উপজেলা। দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে যথাক্রমে নগরীর কোতোয়ালী ও ডবলমুরিং থানা।

image_printPrint