জয়পুরহাটে ১১ হাজার হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ

61

জয়পুরহাট, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ (বাসস)ঃ নিবিড় বার্ষিক ফসল উৎপাদন কর্মসূচীর আওতায় ২০১৯-২০ অর্থ বছরে জেলায় ১১ হাজার ৭ শ ১৫ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র বাসস’কে জানায়, চলতি অর্থ বছরে ১১ হাজার ৭ শ ১৫ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যা গত ২০১৮-১৯ রবি মৌসুমের চেয়ে ৬ শ হেক্টর বেশি। এতে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে ২১ হাজার ৬ শ ৮৮ মেট্রিক টন । সরিষার হেক্টর প্রতি গড় ফলন ধরা হয়েছে এক দশমিক ৮৫ মেট্রিক টন। উপজেলা ভিত্তিক সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে রয়েছে জয়পুরহাট সদরে ৩ হাজার ৪ শ হেক্টর, পাঁচবিবি উপজেলায় ৪ হাজার ৬৯০ হেক্টর, আক্কেলপুর উপজেলায় এক হাজার ৪ শ ৮৫ হেক্টর, ক্ষেতলাল উপজেলায় এক হাজার ৪৫০ হেক্টর ও কালাই উপজেলায় ৬ শ ৯০ হেক্টর জমি। গত মৌসুমে জেলায় সরিষার বাম্পার ফলন হয়েছিল বলে জানায় কৃষি বিভাগ।
কৃষি বিভাগ আরো জানায়, উচ্চ ফলনশীল জাতের সরিষা চাষ করার জন্য বিএডিসি ৭ হাজার ৩৫০ কেজি উন্নত মানের সরিষা বীজ কৃষকের মাঝে বিক্রি করার উদ্যোগ নিয়েছে। কৃষি প্রণোদনার আওতায় কৃষকদের সরিষা বীজ ও সার প্রদান করা হচ্ছে। উন্নত জাতের সরিষা বীজের মধ্যে রয়েছে বারি-১৪, ১৭ ও সম্পদ। জয়পুরহাট সদর, পাঁচবিবি, ক্ষেতলাল ও আক্কেলপুর উপজেলায় সরিষার চাষ বেশি হয়ে থাকে।
জেলায় সরিষা চাষ সফল করতে কৃষক পর্যায়ে ব্যাপক উদ্বুদ্ধ করণ কর্মসূচী গ্রহণের পাশাপাশি সরিষা সংরক্ষণের জন্য উপকরণ হিসেবে ব্যাগ বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুধেন্দ্র নাথ রায় । এ ছাড়াও কৃষক পর্যায়ে উন্নত জাতের বীজ সংরক্ষণ প্রকল্পের অধীন কৃষি প্রণোদনার আওতায় কৃষকদের সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
বাসস/সংবাদদাতা/১০-২১/নূসী

image_printPrint