মধুসূদন দত্তের মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে সাগরদাঁড়িতে দুই বাংলার কবিদের মিলন মেলা

208
image_printPrint

যশোর, ২৯ জুন, ২০১৮ (বাসস) : মাইকেল মধুসূদন দত্তের মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে দুই বাংলার কবি ও সাহিত্যিকদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে সাগরদাঁড়ির মধুপল্লী।
শুক্রবার দিনব্যাপী জেলার কেশবপুর উপজেলার সাগরদাঁড়িতে আধুনিক বাংলা সাহিত্যের জনক মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের ১৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা হয়েছে।
উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে ও মধুসূদন একাডেমির সহযোগিতায় কবি সমাবেশ, মধুসূদন একাডেমি পুরস্কার প্রদান, আলোচনাসভা,আবৃত্তি, নাটক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রশাসনের উদ্যোগে এই মৃত্যুবার্ষিকীর আয়োজনের মধ্যদিয়ে সাগরদাঁড়ি পরিণত হয় দুই বাংলার কবি ও সাহিত্যিকদের মিলনমেলায়।
কবির জন্মস্থান কপোতাক্ষ নদের তীরবর্তী সাগরদাঁড়ির মধুপল্লীতে কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানূর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল। মুখ্য আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক (বার্তা) কবি নাসির আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কবি ও গবেষক ড. মোস্তফা তারিকুল আহসান, খুলনা সরকারী বিএল কলেজের প্রাক্তন অধ্যাপক প্রফেসর আব্দুল মান্নান, প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের আঞ্চলিক পরিচালক আফরোজা খান মিতা, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. তানভির দুলাল,কলকাতার অভিনেতা ও বাচিকশিল্পী রামগোপাল চট্টোপাধ্যায়।
বক্তারা বলেন, মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত আমাদের প্রথম অসাম্প্রদায়িক কবি। বাংলা ভাষাকে বিশ্বের কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য তিনি নিজেকে উৎসর্গ করেছিলেন।