বর্তমান বিশ্বে ইন্টারনেট পাওয়ার অধিকারকে ষষ্ঠ মৌলিক অধিকার বিবেচনা করা হয় : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

392

ঝালকাঠি, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বর্তমান বিশ্বে ইন্টারনেট পাওয়ার অধিকারকে ষষ্ঠ মৌলিক অধিকার হিসেবে বিবেচনা করা হয়। মানুষের পাঁচটি মৌলিক অধিকার সুরক্ষিত রাখতে হলে ইন্টারনেট ব্যবহারের বিকল্প নেই।
তিনি বলেন, ইন্টারনেট সংযোগ প্রদান করা ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানের প্রধান শর্ত। তাই সবার জন্য ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে হবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝালকাঠিতে আইসিটি কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন।
আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, গ্রামে বসে শহরের সকল সুবিধার জন্য বর্তমান সরকার ইন্টারনেট সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছে।
তিনি বলেন, ইন্টারনেট ছাড়া বর্তমানে একটি মুহূর্তও কল্পনা করা যায় না। ইন্টারনেটের সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবাসহ সরকারের সকল প্রকারের সেবা মানুষের দোরগাড়ায় পৌঁছে দেয়া সম্ভব হবে। এমনকি গ্রাম থেকে অনলাইন মার্কেটের মাধ্যমে সহজেই পণ্য ক্রেতার কাছে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এখন প্রয়োজন দক্ষ মানব সম্পদ। বর্তমানে আইসিটি বিষয়টিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ জন্য শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। যাতে শিক্ষার্থীরা হাতে কলমে কম্পিউটার সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করতে পারে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ইনফো-সরকার তৃতীয় পর্যায়ের প্রকল্প পরিচালক বিকর্ণ কুমার ঘোষ। জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির ও পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদারসহ সরকারি-বেসরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, উদ্যোক্তা ও আইসিটি বিভাগের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে প্রতিমন্ত্রী ঝালকাঠির ঐতিহ্যবাহী ভীমরুলী ভাসমান হাট ও পেয়ারা বাগান পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি চাষীদের সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন।

image_printPrint