সরকার কর ন্যায্যতাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে : পরিকল্পনামন্ত্রী

263

ঢাকা, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ (বাসস) : পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, কর ন্যায্যতাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সরকার সামাজিক সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণ এবং উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নসহ নানামূখী জনবান্ধব কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।
সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচা সিরডাপ মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশে একটি দরিদ্র বান্ধব ও প্রগতিশীল কর পদ্ধতি প্রণয়নের লক্ষ্যে কর ন্যাষ্যতা প্রচারাভিযান’ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান (সুপ্র) মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।
সুপ্র চেয়ারপার্সন আব্দুল আঊয়ালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ড. আব্দুল মজিদ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. এম এম আকাশ,দৈনিক প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
সভায় কর আদায়ের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অক্সফ্যাম বাংলাদেশের পলিসি, এডভোকেসি,ক্যাম্পেইন এন্ড কমিউনিকেশন ম্যানেজার এস এম মনজুর রশীদ।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন,দেশে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পাশাপাশি আয় বৈষম্যও বাড়ছে। সরকার এ বিষয়ে অত্যন্ত সচেতন। তাই আমরা প্রগতিশীল কর ব্যবস্থা প্রণয়নের পাশাপাশি করের টাকা যেন সত্যিকার অর্থে জনগনের জন্য ব্যয় হয়,সেটা নিশ্চিত করা হচ্ছে। এর পাশাপাশি সামাজিক সুরক্ষা জোরদার ও স্বাস্থ্যসেবা সহজ করতে সারাদেশে কমিউনিটি ক্লিনিক গড়ে তোলা হয়েছে।
সরকারের কর ন্যায্যতা উদ্যোগের উদাহরণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন,করের টাকায় দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা আধুনিক ও সহজ করা হয়েছে। গত দশ বছরে দেশের অবকাঠামোখাতে আমুল পরিবর্তন এসেছে। মানুষের জীবনযাত্রা সহজ করতে নানামূখী উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের কথা জানান তিনি।
পরিকল্পনামন্ত্রী কর ন্যাষ্যতার বিষয়টি জোরদার করতে ও অর্থ পাচার বন্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য নাগরিক সমাজের প্রতি আহবান জানান।

image_printPrint