বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের মূল্য বৃদ্ধির আহ্বান বাণিজ্যমন্ত্রীর

138
image_printPrint

ঢাকা, ২৫ জুন, ২০১৮ (বাসস) : বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের মূল্য বৃদ্ধির ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের গার্মেন্টস মালিকরা বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করেছেন কিন্তু তৈরি পোশাকের মূল্য বৃদ্ধি করা হচ্ছে না। তৈরি পোশাকের মূল্য বৃদ্ধি করা একান্ত প্রয়োজন। সরকার বাংলাদেশের শ্রম আইনও সংশোধন করেছে। শ্রমিকরা এখন যে কোন সময়ের চেয়ে অধিক শ্রম অধিকার ভোগ করছে।’
তোফায়েল আহমেদ আজ বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে ‘সাসটেইনিবিলিটি কম্প্যাক্টের ৪র্থ পর্যালোচনা সভা’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন।
সোমবার ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।
এতে বলা হয়েছে, সভায় তোফায়েল আহমেদ বলেন, ইউরোপিয়ন ইউনিয়ন, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক অংশিদার। বিশেষ করে ইউরোপিয়ন ইউনিয়ন এভ্রিথিংস বাট আমস’র (ইবিএ) আওতায় বাংলাদেশকে জিএসপি সুবিধা প্রদান করে যাচ্ছে। এতে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে বেশ উপকৃত হচ্ছে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ আশা করছে, আগামীতে এ সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রতিবেশি রাষ্ট্র মায়ানমার থেকে বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গা জীবন বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা একান্ত মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় প্রদান করেছে। বারো লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশের অর্থনীতির উপর চাপ সৃষ্টি করেছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপিয়ন ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত, অষ্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত, কানাডার রাষ্ট্রদূত, আইএলও প্রতিনিধি বক্তব্য রাখেন। তারা বাংলাদেশের সামগ্রিক উন্নয়নের প্রশংসা করেন। বক্তাগণ বাংলাদেশের তৈরী পোশাক খাতের শ্রমিকদের স্বার্থরক্ষায় সরকার ও শিল্প মালিকদের গৃহীত পদক্ষেপের প্রশংসা করেন।
সাসটেইনিবিলিটি কম্প্যাক্টের ৪র্থ পর্যালোচনা সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন।