নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আদালতে সরকারের বক্তব্য উপস্থাপন করা হবে : তথ্যমন্ত্রী

254

চট্টগ্রাম, ৮ আগস্ট, ২০১৯ (বাসস) : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, নবম ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আদালতে সরকারের বক্তব্য উপস্থাপন করা হবে।
তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করছি, আদালতের বিবেচ্য দৃষ্টি নিশ্চয়ই সাংবাদিকদের স্বার্থে বিবেচিত হবে। তবে যেহেতু এটি বিচারাধীন বিষয় আমি এর চেয়ে বেশি বলতে পারি না। শুধু আশা প্রকাশ করতে পারি।’
ড. হাছান আজ বিকেলে চট্টগ্রামে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইম্যান (এইউডব্লিউ) আয়োজিত ম্যাথ অ্যান্ড সায়েন্স সামার স্কুলের সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে নবম ওয়েজবোর্ড প্রজ্ঞাপন জারী করার জন্য সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছিল। মন্ত্রীসভা কমিটি চূড়ান্ত করে সেটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কেবিনেটে পাঠানোর জন্য আমরা সমস্ত কাগজপত্র তৈরী করে ফেলেছি। সেই পর্যায়ে আদালত থেকে স্থিতাবস্থার একটি রায় এসেছে।
তিনি বলেন, ‘সংবাদপত্র মালিকদের যে মামলা সেটাতে সরকার এবং ওয়েজবোর্ডকে বিবাদী করা হয়েছে। যেহেতু তারা আদালতে গেছে, আদালতে আমরা এটি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের বক্তব্য অবশ্যই উপস্থাপন করবো। যাতে করে এটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়’।
আদালত স্থিতাবস্থা ও যেসব ব্যাখ্যা চেয়েছে সেগুলো আইনজীবির মাধ্যমে আদালতে উপস্থাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।
তথ্যমন্ত্রী বলেন কিছু লোক আছে যারা কোন কাজ করেন না, অন্য কেউ কাজ করলে সমালোচনা করে। বিএনপি’রও একই দশা হয়েছে। যেখানে ডেঙ্গু মোকাবেলা করার জন্য সমস্ত বাংলাদেশের মানুষ আজকে উদ্বিগ্ন সেখানে দেখলাম মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কয়েকদিন আগে নতুন নির্বাচনের দাবি করেছেন।
এখন কি দেশের মানুষ নির্বাচন দাবির দিশায় আছে এমন প্রশ্ন রেখে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সমগ্র দেশের মানুষ ডেঙ্গু নিয়ে উদ্বিগ্ন। সবাই আত্মপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তারা পাশে না দাঁড়িয়ে বরং সমালোচনা করছে, আবার নতুন নির্বাচন দাবি করছে। এতেই প্রমাণিত হয় বিএনপি আসলে জনগণের জন্য রাজনীতি করেনা।
অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে হাছান মাহমুদ বলেন, জীবন হচ্ছে বাইসাইকেল চালানোর মতো। সাইকেল চালাতে যেমন ভারসাম্য রাখতে হয়, জীবনে সফল হতে হলেও তেমনি সবকিছুতে ভারসাম্য থাকা চাই। চলার পথে জীবনকে যুদ্ধক্ষেত্র মনে করবে। নিজের স্বপ্ন ঠিক করে তা বাস্তবায়নে দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাবে। সফলতা একদিন ধরা দেবেই।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য ওয়াসিকা আয়েশা খান, শেভরনের পরিচালক (কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স) ইসমাইল চৌধুরী এবং বুয়েটের প্রফেসর ড. সেলিয়া শাহনাজ, এইউডব্লিও’র রেজিস্ট্রার ড. ডেভ ডল্যান্ড, প্রফেসর এ কে এম মুনিরুজ্জামান মোল্লা।

image_printPrint