পর্তুগালে দাবানল নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ১৭শ’ দমকল কর্মী

127

আমানদোয়া (পর্তুগাল), ২২ জুলাই, ২০১৯ (বাসস ডেস্ক): পর্তুগালের মধ্যাঞ্চলীয় একটি পার্বত্য এলাকায় ছড়িয়ে পড়া ভয়াবহ দাবানল নিয়ন্ত্রণে রোববার বিমান ও হেলিকপ্টারসহ প্রায় দুই হাজার দমকল কর্মীকে নিয়োগ করা হয়েছে। সেখানে ২০১৭ সালের ব্যাপক দাবানলের ঘটনায় শতাধিক লোক প্রাণ হারায়। খবর এএফপি’র।
উদ্ধার সংস্থা জানায়, লিসবনের প্রায় ২শ’ কিলোমিটার উত্তরে গভীর বনভূমি কাস্টেলো ব্রানকো অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া দাবানল নিয়ন্ত্রণে এক হাজার ৭শ’ দমকল কর্মী ও ৪শ’ গাড়ি মোতায়েন করা হয়েছে। এরআগে এ অঞ্চলের দাবানল নিয়ন্ত্রণে কখনো এতো শক্তি প্রয়োগ করা হয়নি।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সেখানে দাবানলে প্রায় ২০ জন দগ্ধ হয়েছে। এদের মধ্যে আটজন দমকল কর্মী ও ১২ জন বেসামরিক নাগরিক রয়েছে।
মারাত্মকভাবে দগ্ধ এক বেসামরিক নাগরিককে হেলিকপ্টারে করে লিসবনে নেয়া হয়েছে।
ভিলা ডি রি পৌরসভার আগুন নিয়ন্ত্রণে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। সেখানে দাবানল নিয়ন্ত্রণে ৮শ’ দমকল কর্মী ও ২৪৫ টি গাড়ি মোতায়েন করা হয়েছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এদুয়ার্দো ক্যাবরিতা সাংবাদিকদের বলেন, সেখানে দাবানলটি এখনো নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। সেটি ‘অব্যাহত’ রয়েছে।
তিনি বলেন, উদ্দেশ্যমূলকভাবে কেউ সেখানে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে কিনা কর্তৃপক্ষ সেটি খতিয়ে দেখছে।
এদিকে এক বার্তায় পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবালো ডি সৌসা সাহসিকতার সাথে যারা দাবানল মোকাবেলা করছেন তাদের কাজের প্রতি তার সংহতি প্রকাশ করেন।

image_printPrint