ইরানের ড্রোন ভূপাতিত : উপসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা বৃদ্ধি

126

ওয়াশিংটন, ১৯ জুলাই, ২০১৯ (বাসস ডেস্ক): উপসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনা বৃহস্পতিবার বৃদ্ধি পেয়েছে। মার্কিন নৌবাহিনীর একটি জাহাজ থেকে গুলি করে ইরানের একটি ড্রোন ভূপাতিত করা হয়েছে ট্রাম্প এ কথা জানানোর পর এ উত্তেজনা বৃদ্ধি পায়। নৌবাহিনীর জাহাজটি হরমুজ প্রণালীতে প্রবেশ করার সময় ড্রোনটি তাদের জন্য হুমকি হয়ে পড়ায় তারা এটি গুলি করে ভূপাতিত করে। খবর এএফপি’র।
একের পর এক বিবাদপূর্ণ ঘটনার পর এটি ছিল ইরানের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম সামরিক পদক্ষেপ।
ট্রাম্প বলেন, উভগামী হামলা চালাতে সক্ষম ইএসএস বক্সার আত্মরক্ষামূলক পদক্ষেপ হিসেবে ইরানের ড্রোনটি গুলি করে ভূপাতিত করে কারণ সেটি মার্কিন জাহাজ ও জাহাজের ক্রূদের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছিল।
ট্রাম্প বলেন, ড্রোনটি বক্সারের এক হাজার গজের মধ্যে আসায় সেটি ‘দ্রুত’ গুলি করে ভূপাতিত করা হয়।
তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক জলসীমায় চলাচলকারী বিভিন্ন জাহাজের বিরুদ্ধে ইরানের বহু উস্কানি ও শত্রুতামূলক পদক্ষেপের সর্বশেষ হচ্ছে এটি।’
ট্রাম্প বলেন, ‘আমাদের নাগরিক, আমাদের বিভিন্ন স্থাপনা ও স্বার্থ রক্ষার অধিকার যুক্তরাষ্ট্রের রয়েছে।’
তিনি জাহাজ চলাচল এবং বিশ্ব বাণিজ্যের স্বাধীনতা বাধাগ্রস্ত করতে ইরানের প্রচেষ্টার নিন্দা জানাতে সকল দেশের প্রতি আহ্বান জানান।
এদিকে ইরানের শীর্ষ কূটনীতিক মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ সাংবাদিকদের বলেন, তিনি ‘ড্রোনটির ভূপাতিত হওয়ার ব্যাপারে কোন তথ্য জানেন না। জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেসের সঙ্গে বৈঠক করতে জাতিসংঘ সদরদপ্তরে পৌঁছার পর তিনি একথা বলেন।

image_printPrint