৬টি প্রকল্পে ১৫ হাজার কোটি টাকা ঋণ দেবে জাপান

131
image_printPrint

ঢাকা, ১৪ জুন, ২০১৮ (বাসস) : জাপান সরকার তাদের ৩৯তম সরকারি উন্নয়ন সহযোগিতার (ওডিএ) ঋণ প্যাকেজের আওতায় বাংলাদেশে বাস্তবায়নাধীন ৬টি বড় প্রকল্পে প্রায় ১৫ হাজার ৩২৬ কোটি টাকা অর্থ সহযোগিতা প্রদান করবে।
অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সচিব কাজী শফিকুল আজম ও ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোইয়াসু ইজুমি বাস্তবায়নাধীন ৬টি প্রকল্পে সহযোগিতা সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষর করেন। বাংলাদেশের পক্ষে ইআরডি’র সচিব ও ঢাকায় জাপানের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থার (জাইকা) প্রধান নির্বাহী তাকাতোশি নিশিকাতা এই ঋণতে চুক্তি সই করেন।
প্রকল্পগুলোর মধ্যে মাতারবাড়ি বন্দর উন্নয়ন প্রকল্পে ২০৩ কোটি টাকা, যমুনা রেল সেতু নির্মাণ প্রকল্পে ২ হাজার ৮৪৬ কোটি টাকা, ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পে (লাইন ৫) ৫৬২ কোটি টাকা, ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প (৩য় পর্যায়) ৬ হাজার ৬৩ কোটি টাকা, মাতারবাড়ি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্প (৪র্থ পর্যায়) ৫ হাজার ১৪৮ কোটি টাকা এবং স্বাস্থ্যসেবা উন্নয়ন প্রকল্পে ৫০১ কোটি টাকা অর্থ সহযোগিতা রয়েছে।
প্রকল্পগুলোর মধ্যে জাপান নির্মাণ কাজে বছরে শতকরা ১ শতাংশ, স্বাস্থ্যসেবা খাতের উন্নয়নে বছরে শতকরা ০ দশমিক ৯ শতাংশ এবং প্রকৌশল সহযোগিতা প্রদানের ক্ষেত্রে বছরে শতকরা ০ দশমিক ০১ শতাংশ হারে সুদ নিবে। ঋণ প্রাপ্তির প্রাথমিক ফি নির্ধারণ করা হয়েছে শতকরা ০ দশমিক ২ শতাংশ। এতে ১০ বছর গ্রেস পিরিয়ড ধরে ঋণ পরিশোধের সময়কাল ৩০ বছর নির্ধারণ করা হয়েছে।
ইআরডি কর্মকর্তারা জানান, মাতারবাড়ি বন্দর উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্দেশ্য হলো কক্সবাজারের মাতারবাড়িতে একটি নতুন বাণিজ্য বন্দর স্থাপন করা। মোট ৩ হাজার ৫১১ মিলিয়ন ইয়েন ব্যয়ের এই প্রকল্পটিতে জাইকা ২ হাজার ৬৫৫ মিলিয়ন ইয়েন অর্থ মূল্যের প্রকৌশল সহযোগিতা প্রদান করবে, যা মোট প্রকল্প ব্যয়ের ৭৫ শতাংশ।