সুনির্দিষ্ট বিচারিক এখতিয়ার দিয়ে হাইকোর্টে অবকাশকালীন বেঞ্চ গঠন

81

ঢাকা, ২৫ মে, ২০১৯ (বাসস): আগামীকাল রোববার ২৬ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত সাপ্তাহিক ছুটি, সরকার ঘোষিত অন্যান্য ছুটি এবং কোর্টে অবকাশের কারণে টানা ২১ দিন সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগে নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।
এ সময় নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগে জরুরি বিষয় নিষ্পত্তির জন্য অবকাশকালীন বেঞ্চ গঠন করে দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নির্দেশে অবকাশে জরুরি বিষয় নিষ্পত্তির জন্য সুনির্দিষ্ট বিচারিক এখতিয়ার দিয়ে হাইকোর্ট বিভাগে বেঞ্চ গঠন করা হয়েছে। আগামী ১৬ জুন থেকে যথারীতি শুরু হবে সর্বোচ্চ আদালতের নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম।
হাইকোর্ট বিভাগের ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আক্তারুজ্জামান ভূঞা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হাইকোর্টের ৫টি দ্বৈত বেঞ্চ এবং তিনটি একক বেঞ্চে অবকাশে জরুরি মামলা সংক্রান্ত কার্যক্রম চলবে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অবকাশকালীন সময়ে বিচারপতি মো. রইস উদ্দিন ও বিচারপতি এ, এস,এম আব্দুল মোবিন সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ এবং বিচারপতি হাবিবুল গনি ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীম সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ ফৌজদারি মোশন, ফৌজদারি আপিল এবং ফৌজদারি জামিনের আবেদনপত্র শুনবেন।
বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলম এবং বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীর সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চে রিট মোশনসহ সকল প্রকার রিট বিষয়াদির শুনানি হবে। বিচারপতি এফ,আর,এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি আহমেদ সোহেল সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চে দেওয়ানী সংক্রান্ত মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।
বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের একক বেঞ্চে দেওয়ানী সংক্রান্ত, বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের একক বেঞ্চে ফৌজদারী সংক্রান্ত এবং বিচারপতি জাফর আহমেদের একক বেঞ্চে আদিম অধিক্ষেত্রাধীন বিষয়, সাকসেশন আইন, দেওয়ানী সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়াদীর ওপর মামলায় শুনানি অনুষ্টিত হবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত সুপ্রিমকোর্টের ওয়েবসাইটেও প্রকাশ করা হয়েছে।

image_printPrint