নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় নিহত মেডিকেল শিক্ষার্থীদের জন্য সিলেটে শোক কর্মসূচি

86

সিলেট, ১৩ মার্চ, ২০১৮ (বাসস) : নেপালের ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুর্ঘটনায় ১১ মেডিকেল শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় সিলেটে শোক কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।
সিলেট রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজে আজ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা তিনদিনের কর্মসূচি শুরু করে।
কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, কালো ব্যাজ ধারণ, কলেজের পতাকা অর্ধনমিত রাখা এবং ক্লাস ও পরীক্ষা স্থগিত রাখা।
১৫ মার্চ পর্যন্ত এ শোক কর্মসূচি পালিত হবে।
সিলেটে অধ্যয়নরত নেপালি শিক্ষার্থী ও তাদের সহপাঠীদের মধ্যে শোকের ছায়া বিরাজ করছে। সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় সিলেটের আরেক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পার্কভিউ মেডিকেল কলেজের নেপালি শিক্ষার্থীরা আলোর মিছিল করেছে। মোববাতি জ¦ালিয়ে তারা ক্যাম্পাস থেকে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করেছে।
গত সোমবার নেপালে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলার একটি বিমান দুর্ঘটনা কবলিত হয়। ওই বিমানের ৬৭ যাত্রীর মধ্যে সিলেটের রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজের ১৩ নেপালী শিক্ষার্থী ছিল। এসব শিক্ষার্থী ফাইনাল প্রুফ পরীক্ষা শেষে নিজ দেশে ফিরছিলেন।
এদের মধ্যে প্রিন্সি ধামি ও সামিরা বায়জানকার নামে ২জন জীবিত উদ্ধারের তালিকায় রয়েছে।
রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আবেদ হোসেন বাসসকে বলেন, গণমাধ্যমে আহত অবস্থায় জীবিত উদ্ধারের তালিকা পেয়ে আমরা জানতে পেরেছি আমাদের দু’জন শিক্ষার্থী এখনও জীবিত। অন্যদের ব্যাপারে আমরা খোঁজ নিচ্ছি। একই ফ্লাইটে ২জন ছাত্র ও ১১জন ছাত্রী ছিলেন।
রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজে বর্তমানে আড়াই শ’ নেপালি শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছেন। আরো প্রায় তিন শ’ নেপালি শিক্ষার্থী এমবিবিএস পাশ করেছেন। এই প্রতিষ্ঠান ছাড়াও সিলেটে আরো ৩টি বেসরকারি মেডিকেলে বিদেশি শিক্ষার্থীরা অধ্যয়রত আছেন।

image_printPrint