বাসস প্রধানমন্ত্রী-৫ (দ্বিতীয় ও শেষ কিস্তি) : সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন : প্রধানমন্ত্রী

282

বাসস প্রধানমন্ত্রী-৫ (দ্বিতীয় ও শেষ কিস্তি)
শেখ হাসিনা-সংবর্ধনা
সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হোন : প্রধানমন্ত্রী

২০১৩, ২০১৪ ও ২০১৫ সালে বিএনপি-জামায়াতের নাশকতার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অপকর্মের জন্য গত সাধারণ নির্বাচনে তাদের ভরাডুবি হয়েছে। আগামীতে বাংলাদেশে যেন এ ধরনের আগুন-সন্ত্রাসের পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেজন্য তিনি সকলকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান।
শেখ হাসিনা খাদ্য, জ্বালানি, স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাঁর সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কর্মকান্ডের বিবরণ দেন।
তিনি বলেন, ‘দেশের একটি মানুষও ক্ষুধার্ত ও গৃহহীন থাকবে না, আর এটিই আমাদের সরকারের সিদ্ধান্ত।’ দেশের মানুষই তাঁর পরিবার উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এ পরিবারের প্রতিটি সদস্যের জীবনমান উন্নত করা তাঁর দায়িত্ব। তিনি বলেন, ‘আমরা দেশপ্রেমের বোধ ও দায়িত্ব থেকে জনগণের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করছি।’
শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকার দেশে বেশ কিছু মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে এবং বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে একশ’টি অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করেছে।
দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশীদের অবদানের ভূয়সী প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী প্রবাসীদের কল্যাণে তাঁর সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘চাকরি প্রার্থীরা যাতে তাদের জমি-জমা বিক্রি করার বদলে ব্যাংক ঋণ নিয়ে বিদেশ যেতে পারে সেজন্য আমরা প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেছি।’ তিনি বলেন, ‘যেসব অঞ্চলে জনসংখ্যা বেশি সেখানে এই ব্যাংকের শাখা খোলা হবে।’
তিনি বলেন, বিদেশে বাংলাদেশী কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রতারণা রোধে তাঁর সরকার ই-পাসপোর্ট চালু করতে যাচ্ছে। তবে শেখ হাসিনা শ্রমিকদের কোনো প্রকার প্রতারণার শিকার না হওয়ার জন্য নিজ থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন।
বাসস/এসএইচ/অনুবাদ/এইচএন/২২৩৮/-মমআ/-এবিএইচ