সোসিয়েদাদকে পরাজিত করে শিরোপার দ্বারপ্রান্তে বার্সেলোনা

51

মাদ্রিদ, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ (বাসস) : রিয়াল সোসিয়েদাদকে ২-১ গোলে পরাজিত করে গত ১১ বছরে অষ্টম লা লিগা শিরোপার কাছাকাছি পৌঁছে গেছে বার্সেলোনা। বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হয়ে ক্যাম্প ন্যুতে গতকাল গোল দু’টি করেছেন ক্লেমেন্ট লেঙ্গেল্ট ও জর্ডি আলবা।
এই জয়ের ফলে মঙ্গলবার আলাভেস এবং শনিবার ঘরের মাঠে লেভান্তের বিপক্ষে জিততে পারলেই শিরোপা নিশ্চিত হবে কাতালান জায়ান্টদের। তবে বুধবার এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ যদি ভ্যালেন্সিয়ার কাছে পরাজিত হয় তবে আলাভেসের বিপক্ষে তিন পয়েন্টই শিরোপা জয়ে যথেষ্ঠ হবে। তিনদিন হোক বা সাতদিন, এটা অন্তত নিশ্চিত যে আর্নেস্টো ভালভার্দের দল তাদের শিরোপা ধরে রাখার মিশনে সফল হয়েছে। গতকাল ম্যাচ শেষে বার্সা বস বলেছেন, ‘আমাদের এখন সবকিছু ভুলে শিরোপার অপেক্ষা করতে হবে। পরবর্তী ম্যাচের আগে আমাদের হাতে মাত্র তিনদিন সময় রয়েছে যা কিছুটা কঠিন।’
তবে লা লিগা শিরোপা একটু আগে ভাগে নিশ্চিত হলে বার্সেলোনা ঠান্ডা মাথায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দিকে মনোনিবেশ করতে পারবে। সেমিফাইনালে গতবারের ফাইনালিস্ট লিভারপুল যে কঠিন চ্যালেঞ্জ নিয়ে অপেক্ষা করছে তা সহজেই অনুমেয়। ম্যানচেস্টার সিটির সাথে পাল্লা দিয়ে লিভারপুলও প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা লড়াইয়ে দারুণভাবে টিকে রয়েছে।
কালকের ম্যাচে সোসিয়েদাদ বার্সার সাথে দারুণ লড়াই করেই মাঠ ছেড়েছে। বিরতির ঠিক আগে ওসমানে ডেম্বেলের ক্রস থেকে লেঙ্গেল্টের শক্তিশালী হেডে এগিয়ে যায় বার্সা। কিন্তু স্প্যানিশ স্ট্রাইকার জুনামির গোলে ৬২ মিনিটে সমতা ফেরায় সোসিয়েদাদ। যদিও এই সমতা মাত্র দুই মিনিট স্থায়ী ছিল। লিওনেল মেসি গোল না পেলেও তার পাসেই আলবা জয়সূচক গোলটি করেছেন।
এই নিয়ে টানা ২১টি লিগ ম্যাচে অপরাজিত থাকলো বার্সেলোনা। তৃতীয় স্থানে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ তাদের থেকে ১৬ পয়েন্ট পিছিয়ে রয়েছে। আর দ্বিতীয় স্থানে থাকা এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের সাথে কাতালান জায়ান্টদের পয়েন্টের ব্যবধান ৯। ভালভার্দে বলেছেন, ‘সবাই সবসময় রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচগুলোর দিকে তাকিয়ে থাকে। কারণ তাদেরকেই বার্সেলোনার সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। মাদ্রিদের ক্ষেত্রে এবার একটি কথাই বলতে হয়, তাদের অবশ্যই পরবর্তী মৌসুম নিয়ে চিন্তা করতে হবে।’
প্রথমার্ধে দু’টি ফ্রি-কিক থেকে মেসির গোল না পাওয়া বেশ বিস্ময়কর ছিল। এদিকে সোসিয়েদাদও ম্যাচে এগিয়ে যাবার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু জুনামির শট মার্ক-আন্দ্রে টার স্টেগান আটকে দিয়ে সোসিয়েদাদকে হতাশ করেন। ফিরতি বলে উইলিয়ান হোসেও সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি। লেঙ্গল্টেরে গোলে অবশ্য কোন বাঁধা ছিল না। ডেম্বেলের কর্ণার থেকে এই ফ্রেঞ্চম্যান দু’জন ডিফেন্ডারের উপওে উঠে হেড করে বার্সেলোনার জার্সি গায়ে ক্যারিয়ারের প্রথম লিগ গোল করেন।
বিরতির পর টার স্টেগান ও আলবার মিক্স-আপে গোল পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয় সোসিয়েদাদ। তবে ৬২ মিনিটে মিকেল মিরেনোর দুর্দান্ত একটি থ্রু বলে জুনামি সোসিয়েদাদকে আর হতাশ করেননি। দুই মিনিট পর মেসির পাসে আলবা বামদিক থেকে দারুন একটি আক্রমণে আবারো বার্সেলোনাকে এগিয়ে দেন।
দিনের শুরুতে বদলী বেঞ্চ থেকে উঠে আসা ২৩ বছর বয়সী ফ্রেঞ্চ মিডফিল্ডার থমাস লেমারের গোলে এইবারের বিপক্ষে ৮৫ মিনিটে ডেডলক ভাঙ্গে এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। আর এই গোলেই শেষ পর্যন্ত এ্যাথলেটিকোর জয় নিশ্চিত হয়। নিষেধাজ্ঞার কারণে কাল মাঠে ছিলেন না এন্টোনিও গ্রিজম্যান ও দিয়েগো কস্তা। যে কারণে দিয়েগো সিমিয়েনোর দলের ম্যাচের আবহের সাথে মানিয়ে নিতে কিছুটা কষ্ট হয়েছে।

image_printPrint